করোনা ছড়ানোয় চীনের বিরুদ্ধে মামলা, সাক্ষী ট্রাম্প-মোদী

356

করোনা ভাইরাস ছড়ানোর জন্য প্রথম থেকেই চীনকে দায়ী করে আসছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এবার চীনের বিরুদ্ধে করা হলো মামলা। সেই মামলায় আবার সাক্ষী বানানো হয়েছে ট্রাম্প ও মোদীকে।

বৃহস্পতিবার ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জিনিউজের খবরে এ তথ্য দেওয়া হয়। বিহারের আইনজীবী মুরাদ আলি ভারতের আদালতে এই মামলা করেন। মামলার আসামি করা হয়েছে চীনের রাষ্ট্রপতি শি জিনপিংকে।

ভারতীয় দণ্ডবিধির ২৬৯, ২৭০, ২৭১, ৩০২, ৩০৭, ৫০০, ৫০৪ এবং ১২০ (খ) ধারায় মামলা দায়ের করা হয়।

করোনা ভাইরাস নিয়ে চীনের বিরুদ্ধে এটাই প্রথম মামলা নয়। এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের আদালতে একাধিক মামলা হয়েছে। সেসব মামলার শুনানিও হয়েছে। কিন্তু জিনপিংয়ের ডাক পড়েনি।

এদিকে মুরাদ আলি তার দায়ের করা মামলায় দুজন সাক্ষী হিসেবে রেখেছেন নরেন্দ্র মোদী ও ডোনাল্ড ট্রাম্পকে। আর এসবের থেকেও বড় কথা, আদালত তার মামলার শুনানিতে সায় দিয়েছে। ১৬ জুন এই মামলার শুনানি হবে বলে জানা গিয়েছে।

আইনজীবী মুরাদ আলির দাবি, সঠিক সময় চীন সতর্কতা জারি করলে করোনা ভাইরাস সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ত না।

আজ এই ভাইরাসের কারণে বহু দেশে লকডাউন চলছে। দেশের অর্থনীতি ধুঁকছে। আর এসব দুর্ভোগের জন্য দায়ী চীন। এমনটাই মনে করেন ঐ আইনজীবী।

তাই তিনি সরাসরি আইনের দ্বারস্থ হয়েছেন। কোনভাবে চীনকে ছেড়ে দিতে রাজি নন তিনি। সমস্ত সংবাদমাধ্যমে প্রচারিত তথ্য তার মামলার ভিত্ত বলে জানিয়েছেন এই আইনজীবী।

তবে চীন বরাবরই এসব দাবি নাকচ করে আসছে। তারা বলছে, প্রকৃতি থেকেই করোনা ভাইরাসের সৃষ্টি।