কুষ্টিয়ায় প্রকাশ্যে স্ত্রী-সন্তানসহ তিনজনকে গুলি করে হত্যা করেছে এক এএসআই

27

কুষ্টিয়া শহরে প্রকাশ্যে স্ত্রী-সন্তানসহ তিনজনকে গুলি করে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। রোববার বেলা ১২টার দিকে শহরের ১৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাস্টমস মোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সৌমেন রায় নামে পুলিশের এক এসআইকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহতরা হলেন কুমারখালী উপজেলার চাপড়া ইউনিয়নের সাওতা কারিকর পাড়া গ্রামের শাকিল হোসেন (২৮), আসমা খাতুন (২৫) এবং তাদের শিশু সন্তান রবিন (৫)। শাকিল হোসেন একজন বিকাশ কর্মী।

আসমা খাতুনের বাসা কুমারখালী উপজেলার চাপড়া ইউনিয়নে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। সোমেন, আসমা খাতুন ও শাকিল হোসেনের সম্পর্ক নিয়ে বিস্তারিত জানা যায়নি।

তিনজন নিহত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান এবং কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার তাপস কুমার সরকার।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, ‘পর পর তিনটি গুলির শব্দ শুনতে পেয়ে বাইরে আসি। এসে দেখি শিশুসহ তিনজন মাটিতে পড়ে আছে। এর মধ্যে মা ও পাঁচ বছরের ছেলে ঘটনাস্থলেই মারা যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় শিশুটির বাবাকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান ‘

এদিকে এলাকাবাসী ঘাতককে অস্ত্র ও গুলিসহ আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। পুলিশ তাকে থানায় নিয়ে গেছে। জানা গেছে, ঘাতক খুলনা ফুলতনা থানার এসআই সোমেন।

প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, পরকীয়ার কারণে পুলিশ সদস্য স্বামী তাদের হত্যা করতে পারে।