জাপানের কানসাইয়ে জাতীয় শোকদিবস পালিত

201

মিরর ডেস্ক :

জাপানের ওসাকাতে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কানসাই শাখার উদ্যোগে আজ রোববার জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালন করা হয়। কানসাই আওমীলীগ শাখার সভাপতি আবু সাদাত মোহাম্মদ সায়েমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যম অংশগ্রহন করেন জাতীয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিন। তিনি বাংলাদেশ গঠনে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গবন্ধুর পরিবারের সক্রিয় ভূমিকা স্ববিস্তারে তুলে ধরেন।

বক্তব্য শেষে তিনি কানসাই আওয়ামীলীগ এর সকল নেতা-কর্মীর সাথে কুশল বিনিময় করেন এবং কানসাই আওয়ামীলীগ এর উত্তোরোত্তর সমৃদ্ধি কামনা করেন।

আয়োজক সংগঠনের দপ্তর সম্পাদক ইফতেখার খন্দকার ও সহ দপ্তর সম্পাদক সাইফুল আলম সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন সাধারন সম্পাদক হারুনুর রশিদ। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য আমিনুর রহমান, মাসুদুল হাসান ও বজলুল করিম হীরা, সহ-সভাপতি মো. হারুনুর রশিদ, সহ সভাপতি অসীম কুমার সাহা, যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক মাহফুজুল করিম, সাংগঠনিক সম্পাদক শামীমুল আজাদ রাজু, সাইফুল ইসলাম ও আর.এ সরকার রবিন প্রমুখ। এসময় বক্তারা বঙ্গবন্ধুর জীবন-বৃত্তান্ত ও ১৫ আগষ্ট এ নারকীয় হত্যাকাণ্ডের ইতিহাস তুলে ধরেন।

সভাপতির বক্তব্যে আবু সাদাত মোহাম্মদ সায়েম বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশ আর দেশের মানুষকে হৃদয় দিয়ে ভালোবাসতেন। তিনি বাংলাদেশকে সম্মানজনক অবস্থানে পৌঁছে দিতে আজীবন সংগ্রাম করে গেছেন। বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের মানুষকে ভালোবাসতেন বলেই এতটা ত্যাগ স্বীকার করতে পেরেছিলেন। তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে কাজ করে চলেছেন তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ রাষ্ট্রে পরিণত করতে আপ্রাণ চেষ্টা করছেন। সফলতার প্রতিটি ধাপে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। বাংলাদেশ ছাড়িয়ে বিদেশের মাটিতেও বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে জাপানের আওয়ামী লীগ কর্মীদের কাজ করার আহ্বান জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে জাপান ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফকরুল ইসলাম দিদার, ওসাকা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. সাকিব হাসান ও সাধারন সম্পাদক ইয়াসিন আরাফাত সহ কানসাই যুবলীগ ও কানসাই সেচ্ছাসেবক লীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন