নারায়ণগঞ্জে নারী ইউপি সদস্যকে গুলি

148

মিরর বাংলাদেশ :

নারায়ণগঞ্জ সদরের গোগনগর ইউনিয়ন পরিষদের ৭,৮,৯ নং ওয়ার্ডের নারী ইউপি মেম্বার নিলুফা বেগমকে গুলি করার ঘটনা ঘটেছে।
মঙ্গলবার সকালে ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের পুরান সৈয়দপুর এলাকার শ্বশুর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।
গুলিবিদ্ধ হবার পর প্রথমে তাকে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা মেডিকেলে প্রেরণ করে।
নিলুফা বেগমের বড় ভাই রহিম মুন্সী জানান, তার পায়ে গুলি লেগেছে, তাকে সদর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাবার পর আমাদের ঢাকা মেডিকেল পাঠিয়ে দিয়েছে।
তিনি জানান, এলাকাবাসী দেখেছে যারা সেখানে এসেছে এবং যার হাতে অস্ত্র ছিল সেই গুলি করেছে।
এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে বাড়িতে স্থানীয় কাঠপট্টি এলাকার জলিল মাদবরের ছেলে রানার সাথে দ্ব›দ্ব চলে আসছিল তাদের। সেই দ্ব›েদ্বর জেরে সকালে নিলুফার বাড়িতে দুপক্ষের কথা কাটাকাটি ও বিবাদ সৃষ্টি হয়। তখন নিলুফা বেগম থামাতে গেলে তার পায়ে গুলি করা হয়। এসময় রানা তাকে গুলি করে বলে এলাকাবাসী জানায়।
ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ বাচ্চু মিয়া জানান, একজন গুলিবিদ্ধ এসেছে, তার নাম পরিচয় জানায় চেষ্টা চলছে।
নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ জামান জানান, এরকম কিছু আমার জানা নেই।
গোগনগরের ৪,৫,৬ নং ওয়ার্ডের নারী মেম্বার নাজমা বেগম খোদেজা জানান, শুনেছি গুলিবিদ্ধ হয়েছেন তিনি, তাকে ঢাকা মেডিকেলে নেয়া হয়েছে।
৯ নং ওয়ার্ডের ইউপি মেম্বার আওয়াল হোসেন জানান, ঘটনা শুনে আমরা তার বাড়িতে গিয়েছিলাম, সেখানে তাকে পাইনি। তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। শুনেছি তার পায়ে গুলি লেগেছে।
ইউপি সচিব মাহবুবু রহমান ভূঞা জানান, গুলি লেগেছে, তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। তবে ঠিক কি কারণে কি হয়েছে আমার জানা নেই
নারায়ণগঞ্জ সদরের গোগনগর ইউনিয়ন পরিষদের ৭,৮,৯ নং ওয়ার্ডের নারী ইউপি মেম্বার নিলুফা বেগমকে গুলি করার ঘটনা ঘটেছে।
মঙ্গলবার সকালে ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের পুরান সৈয়দপুর এলাকার শ্বশুর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।
গুলিবিদ্ধ হবার পর প্রথমে তাকে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা মেডিকেলে প্রেরণ করে।
নিলুফা বেগমের বড় ভাই রহিম মুন্সী জানান, তার পায়ে গুলি লেগেছে, তাকে সদর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাবার পর আমাদের ঢাকা মেডিকেল পাঠিয়ে দিয়েছে।
তিনি জানান, এলাকাবাসী দেখেছে যারা সেখানে এসেছে এবং যার হাতে অস্ত্র ছিল সেই গুলি করেছে।
এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে বাড়িতে স্থানীয় কাঠপট্টি এলাকার জলিল মাদবরের ছেলে রানার সাথে দ্ব›দ্ব চলে আসছিল তাদের। সেই দ্বন্ধের জেরে সকালে নিলুফার বাড়িতে দুপক্ষের কথা কাটাকাটি ও বিবাদ সৃষ্টি হয়। তখন নিলুফা বেগম থামাতে গেলে তার পায়ে গুলি করা হয়। এসময় রানা তাকে গুলি করে বলে এলাকাবাসী জানায়।
ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ বাচ্চু মিয়া জানান, একজন গুলিবিদ্ধ এসেছে, তার নাম পরিচয় জানায় চেষ্টা চলছে।
নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ জামান জানান, এরকম কিছু আমার জানা নেই।
গোগনগরের ৪,৫,৬ নং ওয়ার্ডের নারী মেম্বার নাজমা বেগম খোদেজা জানান, শুনেছি গুলিবিদ্ধ হয়েছেন তিনি, তাকে ঢাকা মেডিকেলে নেয়া হয়েছে।
৯ নং ওয়ার্ডের ইউপি মেম্বার আওয়াল হোসেন জানান, ঘটনা শুনে আমরা তার বাড়িতে গিয়েছিলাম, সেখানে তাকে পাইনি। তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। শুনেছি তার পায়ে গুলি লেগেছে।
ইউপি সচিব মাহবুবু রহমান ভূঞা জানান, গুলি লেগেছে, তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। তবে ঠিক কি কারণে কি হয়েছে আমার জানা নেই