পিডিপির চেয়ারম্যান ফেরদৌস আহমেদ কোরেশি আর নেই

493

 

মিরর বাংলাদেশ ;  মুক্তিযুদ্ধের  অন্যতম সংগঠক,সিনিয়র সাংবাদিক,দৈনিক দেশ বাংলার সম্পাদক  ,পিডিপির চেয়ারম্যান ড,ফেরদৌস আহমেদ কোরেশি ইন্তেকাল করছেন।  ইন্না-লিল্লাহ ওয়াইন্না এলাইহি রাজেউন।  আজ সোমবার দুপুরে রাজধানীর কুর্মিটোলা হাসপাতালে    তিনি মারা যান। তার মৃত্যুর বিষয়টি  নিশ্চিত করেছেন  দেশবাংলার সাবেক জিএম মন্টু।

৬০-এর দশকের মেধাবী ছাত্রনেতা ড. কোরেশী তৎকালীন অবিভক্ত পাকিস্তান ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলেন। এরপর তিনি ১৯৬১ সালে ডাকুসর ভিপিও নির্বাচিত হন। জাতীয়তাবাদী চেতনার বিকাশে তার অবদান ছিল অসামান্য। ৬ দফা ও ১১ দফাভিত্তিক ছাত্র ও গণআন্দোলন, ’৬৯-এর গণঅভ্যুত্থানে ফেরদৌস আহমেদ কোরেশীর ভূমিকা ছিল অবিস্মরণীয়। ’৭১-এ মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে মুক্তাঞ্চল থেকে মুক্তিযুদ্ধের মুখপাত্র হিসেবে দেশবাংলা পত্রিকা বের করেন ড. কোরেশী। ওই সময় থেকেই তিনি পত্রিকাটির সম্পাদকের দায়িত্বে রয়েছেন।

সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি গঠন করলে ওই দলের প্রথম যুগ্ম মহাসচিবও ছিলেন ড. কোরেশী। ২০০৭ সালে তিনি প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দল (পিডিপি) দল গঠন করেন। আমৃত্যু তিনি ওই দলের চেয়ারম্যানের দায়িত্বে রয়েছেন।

২০১৫ সালের ২১ অক্টোবর রাজধানীর সিদ্ধেশ্বরীর বাসায় ব্রেইন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে এ্যাপোলো হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি। পরে বহুদিন ছিলেন পিজিতে। আর্থিক টানাপড়েনের কারণে শারীরিকভাবে কিছুটা সুস্থ হলেই বাসায় ফেরেন আলোচিত এই রাজনীতিবিদ। এরপর বাসায় বিছানায় শুয়ে কেটেছে এক সময়ের তুখোড় এই ছাত্রনেতার।