সাফ চ্যাম্পিয়নদের পথে পথে ফুলেল শুভেচ্ছা

17

মিরর বাংলাদেশ :
সাফ চ্যাম্পিয়ন হয়ে দেশে ফিরেছেন বাংলাদেশ ফুটবল নারী দল।  বুধবার দুপুর পৌনে দুইটায় শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেছেন সানজিদা-সাবিনারা। যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল, বাফুফের সহ-সভাপতি আতাউর রহমান ভুঁইয়া, সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ ও অন্য কর্তারা বরণ করে নেন সাবিনা-মারিয়া-কৃষ্ণাদের। বিমানবন্দরে আনুষ্ঠানিকতা শেষে শুরুতেই কেক কাটা হয়। ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী কেক তুলে দেন অধিনায়ক সাবিনা খাতুনের মুখে। শিরোপাজয়ী অধিনায়কই শুধু নন, তিনি টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় ও সর্বোচ্চ গোল স্কোরারও। কোচ গোলাম রব্বানী ছোটনকেও কেক খাইয়ে দেওয়া হয়।

এরপর ক্রীড়ামন্ত্রী একে একে দলের প্রত্যেক খেলোয়াড় ও কোচিং স্টাফের গলায় পরিয়ে দেন ফুলের মালা। একটু পর দুহাতে ট্রফি উঁচিয়ে চওড়া হাসিতে এগিয়ে যান অধিনায়ক সাবিনা। তাকে অনুসরণ করেন গোটা দল।

বিমানবন্দরের বাইরে তখন অপেক্ষায় হাজারও জনতা। অনেকের হাতেই জাতীয় পতাকা, নানা রকম ব্যানার। বিকেএসপির একটি বড় দলও দেখা যায় সেখানে লাইন ধরে অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে মেয়েদেরকে বরণ করে নিতে। স্লোগানে স্লোগানে মুখরিত চারপাশ।

বিমানবন্দরের বাইরে অপেক্ষায় মেয়েদের সেই স্বপ্নযাত্রার বাহন, ‘ছাদখোলা বাস।’ সেই বাসে ওঠার সময়ও মেয়েদের আবার ফুল ছিটিয়ে অভিনন্দন জানানো হয়। এরপর বিমানবন্দর থেকে ছাদখোলা বাসে চড়ে শিরোপা উদ্যাপন করতে করতে ঢাকার বিভিন্ন এলাকা প্রদক্ষিণ করবে বিজয়ীরা। একে একে কাকলী, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়, বিজয় সরণী ফ্লাইওভার, তেজগাঁও, মগবাজার, মৌচাক, কাকরাইল, ফকিরাপুল, মতিঝিল হয়ে বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলকে বহনকারী ছাদখোলা বাসটি বাফুফে ভবনে পৌঁছাবে। এরপর সেখানে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন খেলোয়াড়দের সংবর্ধনা দেবেন।